এবার ভিসির বহিষ্কার চান কাদের সিদ্দিকী

সেপ্টেম্বর ৩০ ২০১৯, ০৯:৫২

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ভিসির বহিষ্কার দাবি জানিয়েছেন কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী।

সোমবার (৩০ সেপ্টেম্বর) জাতীয় প্রেস ক্লাবের আবদুস সালাম হলে কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ আয়োজিত ‘চলমান অভিযান ও রাজনৈতিক প্রেক্ষাপট’ শীর্ষক এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ দাবি করেন।

কাদের সিদ্দিকী বলেন, “ভারতীয় উপ-কমিশনারকে খুশি করার জন্য রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ‘জয়বাংলা’, ‘জয়বঙ্গবন্ধু’র সঙ্গে ‘জয় হিন্দ’ উচ্চারণ করেছেন। আমি এর তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। এই মুহূর্তে তাকে বহিষ্কারের জন্য দাবি জানাচ্ছি।”

তিনি বলেন, ‘এ রকম চাটুকার, এ রকম দালাল যদি একটা বিশ্ববিদ্যালয়ে থাকে, তাহলে ১৯৬৯-এ ড. জোহা রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদের রক্ষা করার জন্য যে জীবন দিয়েছিলেন তা আজ ব্যর্থ হয়ে যায়। তাই তাকে অনতিবিলম্বে বহিষ্কার করা হোক।’

তিনি আরও বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে আজকে প্রায় দুই সপ্তাহ ধরে ছাত্র-ছাত্রীরা একজন খুবই খারাপ ধরনের মানুষকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বের করে দেয়ার জন্য, তার পদত্যাগের জন্য আপ্রাণ চেষ্টা করছেন। এসব বিষয়ে কেন যে প্রশাসনের টনক নড়ে না তা আমরা বুঝতে পারছি না।’ এ সময় সার্বিকভাবে যেখানে দুর্নীতি আছে সেখানে চলমান অভিযানের হাত প্রসারিত করার আহ্বান জানান কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি।

কাদের সিদ্দিকী বলেন, ‘এখন পর্যন্ত ছাত্রলীগের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদককে বহিষ্কার, যুবলীগের কতিপয় নেতৃবৃন্দকে গ্রেফতার এবং আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের ভয় দেখানো-এটা বাংলাদেশকে দুর্নীতিমুক্ত করার শেষ কথা নয়। আঙুল ফুলে অনেকেই কলাগাছ হয়েছে। শেয়ারবাজারে কোটি কোটি টাকা লুট করে প্রায় ৩০ থেকে ৪০ লাখ ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীকে পথের কাঙাল করেছে, সেদিকে সরকারের কোনো দৃষ্টি নাই। সেজন্য স্পষ্ট করে বলতে চাই, শুধু একতরফাভাবে একটা কিছু করে, ছেলে ভোলানো পাঁয়তারা করলে চলবে না।’

কৃষক শ্রমিক জনতা লীগ সভাপতির অভিযোগ, পুলিশ, র‌্যাব যেখানে ধরে সেখানে হাজার কোটি কোটি টাকা পায়। মানুষ এখন আর খালেদা জিয়ার দুই কোটি টাকাকে আমলে নেয় না বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান তালুকদার ও দলের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।