ঝালকাঠির ৮ কি.মি সড়কের যেকোন সময় ঘটতে পারে বড় দূর্ঘটনা!

জুলাই ০১ ২০২০, ১০:০৯

ঝালকাঠি প্রতিবেদক॥ ঝালকাঠি সদর উপজেলার গাবখান ব্রিজের পশ্চিম ঢাল রুপসিয়া (পুরাতন ফেরিঘাট)হইতে শেখেরহাট টেম্পু স্ট্যান্ড পর্যন্ত ৮ কিলোমিটার সড়কটির বেহাল দশা। যে কোনো সময় বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটতে পারে।

পুরাতন ফেরিঘাট থেকে শুরু করে সম্পূর্ণ সড়কটি খানা খন্দে ভরা। এ সড়কটির মাধ্যমে গাবখান, ওস্তাখান, সারেংগল ও শেখেরহাট সহ আরো বিভিন্ন গ্রাম থেকে প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করে।

সড়কটি দীর্ঘদিন যাবত এ অবস্থায় পড়ে আছে। এতে ওই সব এলাকার লোকজনের মধ্যে চরম ক্ষোভ বিরাজ করছে। এ সব এলাকার লোকজনের এখন একটাই দাবী যেন দ্রুততার সাথে এ সড়কটি সংস্কার করার উদ্যোগ নোয়া হয়।

গাবখান মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক এবং ওই এলাকার বাসিন্দা মোঃ মহিদুল ইসলাম জানান, ঝালকাঠি-গাবখান -শেখেরহাট রাস্তায় চলাচল সম্পূর্ণ বন্ধ হয়ে গেছে। রোগী আনতে এম্বুলেন্স এসে ভাঙ্গা রাস্তার কারণে আসতে পারে নাই। তাই রোগীকে পায়ে হেটে ১ কিলোমিটার পাড়ি দিয়ে এম্বুলেন্স এ উঠতে হয়েছে। উন্নয়ন এর বেহাল দশা থেকে আমরা কখন মুক্তি পাব একমাত্র আল্লাহ ভালো জানেন বলেও হতাশা প্রকাশ করেন তিনি।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী প্রকৌশলী বাকি বিল্লাহ জানান, রুপসিয়া থেকে ৪ কিলোমিটার সড়কের কাজের প্রক্রিয়া ইতোমধ্যে মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে অনুমোদন ও বরাদ্দ পেলে প্রকল্পটির কাজ শুরু হবে।

তিনি আরও জানান, পরবর্তী ৪ কিলোমিটার সড়কের কাজ নদী ভাঙ্গনের কারণে আপাতত করা সম্ভব হচ্ছে না। আমরা সড়কটির পাশে বিআইডব্লিটিএ এর জমি বরাদ্দ চেয়ে ১০ (দশ) কোটি টাকার প্রকল্পটির প্রস্তাবনা ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট পাঠিয়েছি। সেটি খুব দ্রুত অনুমোদন হয়ে আসলে তখন রাস্তাটি ভালোমানের করা হবে বলেও তিনি জানান।