বরিশাল বিভাগে ৩ হাজার ৯৪৪ জনের করোনা শনাক্ত, সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ৪৬২ জন

জুলাই ১১ ২০২০, ০৬:৩৫

তালাশ প্রতিবেদক॥ বরিশাল বিভাগের ৬ জেলায় এ পর্যন্ত মোট ৩ হাজার ৯৪৪ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য বিভাগ। এছাড়া সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ৪৬২ জন এবং মৃত্যু হয়েছে মোট ৮২ জনের।

বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালকের কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, গত ২৪ ঘন্টায় বরিশাল বিভাগের ৬ জেলায় ১০৮ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। আর গেলো ২৪ ঘন্টায় পিরোজপুর ও ঝালকাঠি ব্যতিত বিভাগের ৪ জেলায় ৩৮ জন রোগী সুস্থ হয়েছেন।

পাশাপাশি সর্বশেষ তথ্যানুযায়ী, সম্প্রতি মৃত্যুবরণ করা পিরোজপুরের নেছারাবাদ আব্দুর রব (৮০) এর রিপোর্টে করোনা পজিটিভ পাওয়া গেছে। ফলে এ নিয়ে বিভাগে মোট মৃত্যুর সংখ্যা গিয়ে ৮২ জনে দাঁড়িয়েছে।

এদিকে করোনার সংক্রমণ প্রতিরোধে বিদেশি নাগরিকসহ ভিন্ন জেলা (সংক্রমিত) থেকে আগত ব্যক্তিদের কোয়ারেন্টিনে রাখার কার্যক্রম চলমান রয়েছে। ফলে গত ১০ মার্চ থেকে এ পর্যন্ত বরিশাল সিটি করপোরেশনসহ বিভাগের ৬ জেলায় মোট ২৪ হাজার ৮৯জনকে কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হয়। যারমধ্যে হোম কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হয় ২০ হাজার ৪৭১ জনকে, আর এরমধ্যে ১৭ হাজার ৩৮৪ জনকে হোম কোয়ারেন্টিন থেকে ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে। এছাড়া বিভাগের বিভিন্ন জেলায় হাসপাতালে (প্রতিষ্ঠানিক) কোয়ারেন্টিনে ৩ হাজার ৬১৮ জন রয়েছেন এবং এ পর্যন্ত ১ হাজার ৭৯০ জনকে ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে।

এর বাইরে শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালসহ বিভাগের বিভিন্ন সরকারি হাসপাতালে আইসোলেশনে চিকিৎসা প্রাপ্ত রোগীর সংখ্যা ১ হাজার ৫৬৯ জন এবং এরইমধ্যে ১ হাজার ৫০ জনকে ছাড়পত্রও দেয়া হয়েছে। এছাড়া শুধুমাত্র বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে আইসোলেশন ও করোনা ওয়ার্ডে মোট ১২২ জনের মৃত্যু হয়েছে এ পর্যন্ত। যারমধ্যে ৪৬ জন করোনা পজিটিভ রোগী ও বাকিরা উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন।

এদিকে বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডাঃ বাসুদেব কুমার দাস জানিয়েছেন, বিভাগের মধ্যে এ পর্যন্ত বরিশাল জেলায় ১ হাজার ৮৬৯ জন, পটুয়াখালীতে ৬৩৯, ভোলায় ৩৭৬, পিরোজপুরে ৩৭৪, বরগুনায় ৩৬৮ ও ঝালকাঠিতে ৩১৮ জনের করোনা পজেটিভ শনাক্ত হয়েছে। যারমধ্যে গোটা বিভাগে ১ হাজার ৪৬২ জন করোনা পজিটিভ রোগী সুস্থ্য হয়েছেন। যাদের এরইমধ্যে ছাড়পত্র দেয়া হয়েছে।

এছাড়া মৃত্যু হওয়া করোনা পজিটিভ ৮২ জনের মধ্যে বরিশাল নগরসহ জেলায় ৩১ জন, পটুয়াখালীতে ২৪ জন, ঝালকাঠিতে ১১ জন, পিরোজপুরে ৬ জন, বরগুনায় ৫ ও ভোলায় ৫ জন রয়েছেন।