‘জনগণের অধিকার রক্ষার আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে’

নভেম্বর ২১ ২০২০, ১২:৩৬

বার্তা বরিশাল ডেস্ক॥ ফ্যাসিবাদের বিরুদ্ধে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠায় ঐক্যবদ্ধ সর্বাত্মক লড়াইয়ের আহ্বান জানিয়েছে সরকারবিরোধী রাজনৈতিক নেতারা। তারা বলেন, রাজনৈতিক শক্তিকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে জনগণের অধিকার রক্ষার আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। মওলানা ভাসানীর দিশায় ফ্যাসিবাদী স্বৈরাচারের পতন ঘটাতে হবে।

শুক্রবার (২০ নভেম্বর) সন্ধ্যায় রাজধানীর শাহবাগে জাতীয় জাদুঘরের সামনে এক সমাবেশে নেতারা এসব কথা বলেন। মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানীর ৪৪তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে সমাবেশের আয়োজন করে গণসংহতি আন্দোলন।

সমাবেশে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, মওলানা কেবল ‘খামোশ’ স্লোগান উচ্চারণ করেননি, বলেছেন ‘জাগো-জাগো’, দেশবাসীকে তিনি জাগতেও বলেছেন।

বিপ্লবী ওয়ার্কাস পার্টির সাধারণ সম্পাদক সাইফুল হক বলেন, মওলানা ভাসানী ছিলেন গণমানুষের ঐক্যের প্রতীক। শাসকরা আমাদের ভাগ করতে চায়, মওলানার আদর্শে আমাদের ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।

নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, মওলানার আদর্শে উজ্জ্বীবিত হয়ে আজকে বাংলাদেশের সবগুলো রাজনৈতিক শক্তিকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে জনগণের অধিকার রক্ষার আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে।

সভাপতির বক্তব্যে জোনায়েদ সাকি বলেন, মওলানার ভাসানীর সংগ্রাম আজও আমাদের জন্য সমান প্রাসঙ্গিক। ভাসানীর রাজনীতিই আমাদের রাজনীতি। ভাসানীর দিশায় আজকে ফ্যাসিবাদী স্বৈরাচারের পতন ঘটাতে হবে।

সমাবেশ আরও উপস্থিত ছিলেন, গণতান্ত্রিক বাম জোটের সমন্বয়ক ও সিপিবির প্রেসিডিয়াম সদস্য আবদুল্লাহ আল ক্বাফী রতন, রাষ্ট্রচিন্তার সদস্য অ্যাডভোকেট হাসনাত কাইয়ুম, সাবেক ডাকসু ভিপি নুরুল হক নুর, গণসংহতি আন্দোলনের ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী সমন্বয়কারী আবুল হাসান রুবেল, গণসংহতি রাজনৈতিক পরিষদের সদস্য ও শ্রমিক নেতা তাসলিমা আখতার প্রমুখ।

সমাবেশের মঞ্চ মওলানার বিখ্যাত কিছু ঐতিহাসিক বাণী এবং সমকালীন রাজনীতি নিয়ে নানা স্লোগান সম্বলিত ফেস্টুন ও ব্যানার দিয়ে সুসজ্জিত করা হয়। সমাবেশ শেষে একটি মিছিল শাহবাগ এলাকা প্রদক্ষিণ করে।